শ্রীমঙ্গলে সার্বজনীন শ্মশান কালীবাড়িতে চুরি!


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২৩, ২০২৩, ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ / ৯৯
শ্রীমঙ্গলে সার্বজনীন শ্মশান কালীবাড়িতে চুরি!

তিমির বনিক, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার কালাপুর ইউনিয়নের মাজডিহি দাসপাড়া গ্রামের সার্বজনীন শ্মশান কালীবাড়ীতে চুরির ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) রাত ১২ থেকে শুক্রবার ভোর ৬ পর্যন্ত কোন এক সময় চুরির ঘটনা ঘটেছে। 

শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে দেখাগেছে, মন্দিরের দরজার গ্রিলের তালা ভেঙ্গে ভিতরে আরেকটি দরজার তালা ভেঙ্গে পুজার কাজে ব্যবহৃত থালাবাসন, ঘন্টা,শংখ, খোল করতাল, রান্নার বাসন, সরঞ্জাম সবকিছু চুরি করে নিয়েগেছে চোরেরা। মন্দিরের পিছনে ধানক্ষেতে মিলে দানবাক্স।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, শ্মশাণ কালীবাড়ী মন্দিরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যারতি করে পরে সেখানে হরিসেবার কীর্তন হয় রাত ১২টা অব্দি। তার পরে ভোর পর্যন্ত সময়ের মধ্যে এ চুরির ঘটনাটি ঘটে। পরের দিন শুক্রবার সকাল আনুমানিক ৭টার দিকে মন্দিরে প্রতিদিনের মত পুজা দিতে সেবায়েত স্বপ্না দাস মন্দিরে যান। তিনি সেখানে মন্দিরের গ্রিল ভাঙ্গা দেখতে পান। মন্দিরের দান বাক্স, পুজার সরঞ্জাম নেই। সাথেসাথে তিনি মন্দির কমিটিকে গিয়ে জানান। মন্দির কমিটির সভাপতি, সম্পাদক সহ অন্যান্য লোকজন মন্দিরে যান। বিষয়টি কালাপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ড মেম্বারকে চুরির বিষয়ে অবহিত করেন।

কালাপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ মতলিবের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি দাসপাড়া কালীবাড়ীতে চুরির ঘটনা খবর পাওয়ার পরেই ঘটনাস্থলে যাই ও পরিদর্শন করি।

শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের এসআই আব্দুর রউফ ঘটনাস্থল শ্মশাণ কালীবাড়ী মন্দির পরিদর্শন করে এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এবিষয়ে ওসি স্যারকে অবহিত করেছি।

এ বিষয়ে শ্রীমঙ্গল থানার ওসি বিমান ভুষন রায় জানান, চুরির ঘটনা জানার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অভিযোগ ও দিয়েছে মন্দির কমিটি। আমরা বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করছি ও আইনানুগ প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে।