সাদুল্লাপুরে ছুড়িকাঘাতে গৃহবধূকে হত্যার চেষ্টা


প্রকাশের সময় : আগস্ট ৯, ২০২৩, ৩:৩৬ অপরাহ্ণ / ৭২
সাদুল্লাপুরে ছুড়িকাঘাতে গৃহবধূকে হত্যার চেষ্টা

তোফায়ের হোসেন জাকিরঃ গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় চিত্রা রানী (৪০) নামের এক গৃহবধূকে শ্লীতাহানীর পর ছুড়ি দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ ওঠেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি এজাহার দাখিল করেছে তার স্বামী সুরজিত রঞ্জন অধিকারী। বুধবার দুপুরে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বা¯’্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অব¯’ায় দেখা যায় ওই চিত্রা রানীকে। একই সঙ্গে তার স্বামী সুরজিত রঞ্জন অধিকারীও (৪৫) চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
¯’ানীয় ও এজাহার সুত্রে জানা গেছে, সাদুল্লাপুর শহরতলীর উত্তর কাজীবাড়ী সন্তোলা গ্রামের মৃত জগদীস চন্দ্র অধিকারীর ছেলে সুরজিত রঞ্জন অধিকারীর সঙ্গে তারই আপন ভাই প্রভাত রঞ্জন অধিকারী ও হৃদয় রঞ্জন অধিকারীর জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এরই জেরে মঙ্গলবার বিকেলে প্রভাত ও হৃদয় তাদের লোকজন নিয়ে সুরজিত রঞ্জন অধিকারীর পরিবারে হামলা চালায়। এসময় সুরজিতের স্ত্রী চিত্রা রানীকে টেনে হেঁচড়ে শ্লীলতাহানী করে এবং ধারালো অস্ত্র ও লাঠি দিয়ে কুপিয়ে যখম করতে থাকে। এছাড়াও তাকে শ্বাসরোধে হত্যার চেষ্টা করে। এ মুহূর্তে সুরজিত তার স্ত্রীকে বাঁচানোর জন্য এগিয়ে গেলে তাকেও বেধরক পিটিয়ে আহত করে। এরই মধ্যে ¯’ানীয়রা চিত্রা রানী ও সুরজিতকে আহত অব¯’ায় উদ্ধার করে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বা¯’্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা।
এ তথ্য নিশ্চিত করে ভুক্তভোগি সুরজিত রঞ্জন অধিকারী বলেন, তফসিলের অংশ সুত্রে আমার নামীয় ৮ শতক জমি রয়েছে। এর মধ্যে ৬ শতক জমি জোরপুর্বক দখলে নেয় অন্যান্য ভাইয়েরা। এ জমিটি উদ্ধারের চেষ্টা করা হলেও তারা আমার পরিবারের উপর হামলা করে। বিদ্যমান পরি¯ি’তিতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ বিষয়ে অভিযুক্ত প্রভাত রঞ্জন অধিকারী ও হৃদয় রঞ্জন অধিকারীর সঙ্গে যোগোযোগের চেষ্টা করা হলে তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাবুব আলম বলেন, এ ঘটনায় একটি এজাহার পেয়েছি। সেটি তদন্তাধীন রয়েছে।