ঘোড়াঘাটে আশ্রয়ণের ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধের আত্মহত্যা


প্রকাশের সময় : আগস্ট ৬, ২০২৩, ৫:২০ অপরাহ্ণ / ৬৬
ঘোড়াঘাটে আশ্রয়ণের ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধের আত্মহত্যা

ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ  দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে শমসের আলী নামের এক ষাটোর্ধ্ব বৃদ্ধ গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তিনি উপজেলার ৪নং ঘোড়াঘাট ইউপির কুন্দারামপুর গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে।শনিবার (৫ আগস্ট) রাত ৮ টার সময় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। পরে খবর পেয়ে রাত সাড়ে ৯ টার সময় মৃতের ঘরের শয়নকক্ষ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।জানা যায়, তিনি পেশায় একজন ভ্যানচালক ও বিভিন্ন মৌসুমীকে দিনমজুরী কাজ করতেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘরটি পাওয়ার পর থেকে তিনি স্ত্রী বিলি বেগমের নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন। তার ৪ ছেলে সকলেই অটোভ্যান চালক ও সকলেই আলাদাভাবে বসবাস করতো।স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শমসের আলী দীর্ঘদিন থেকে মানুষিক সমস্যায় ভুগছিলেন। ৩/৪ দিন পূর্বে তিনি নিজেই নিজের পেটে ছুরি মেরে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে। পরে আত্মীয়-স্বজনরা তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছিলেন। এখনো তার পেটে সেলাইয়ের দাগ আছে। ঘটনার সময় বাড়িতে কেউ না থাকায় ঘরের ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে দিয়ে ঘরে সিলিং এ লোহার রডের সাথে ওড়না ঝুলিয়ে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে পুলিশের উপস্থিতিতে স্থানীয়রা ঘরের দরজা ভেঙ্গে লাশটি উদ্ধার করে।এ বিষয়ে ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, ধারণা করা হচ্ছে মানুষিক ও আর্থিক সমস্যাই তার আত্মহত্যা কারণ। এ বিষয়ে তারপরিবারের পক্ষ থেকে একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেন এবং পরিবারের কারো কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।